অসমের বক্সিং রিংয়ে বিজেপি-কংগ্রেস, শেষ রাউন্ডের রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ে নকআউট হবে কে?, In Congress bastion, will BJP do enough to win in the last phase in Assam to return in power

[ad_1]

ধারণা তৈরির খেলা

অসমে কংগ্রেস এবার বদরুদ্দিন আজমলের সঙ্গে জোট বেঁধে ভোটে লড়ছে। এই আবহে একদা বিজেপির গড় হয়ে ওঠা লোয়ার অসম এবং বোড়োল্যান্ড নিয়ে চিন্তার ভাঁজ রয়েছে গেরুয়া শিবিরের কপালে। উল্লেখ্য, বিপিএফ-ও এবার কংগ্রেসের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে বিজেপি প্রথম দুই দফার ভোট নিয়ে এমন একটি ধারণা ভোটারদের মধ্যে তৈরি করতে চাইছে যাতে মনে হবে অসমে অনায়াসে ফিরছে বিজেপি।

সিএএ ফ্যাক্টর

সিএএ ফ্যাক্টর

সিএএ পরবর্তী অসমে রাজনৈতিক সমীকরণ বদলে গিয়েছে পুরোপুরি। একদিকে যেখানে আপার অসমের মানুষরা সিএএ নিয়ে অখুশি, সেখানেই এনআরসি থেকে বাদ পড়া ১৯ লক্ষ মানুষের অনেকেই এখন সিএএ-র পক্ষে। কারণ, বাদ পড়াদের মধ্যে অধিকাংশ বাঙালি হিন্দু, যারা অসমে বিজেপির ভোটব্যাঙ্ক বলে চিহ্নিত। এদিকে সিএএ হলে লোয়ার অসমের সংখ্যালঘুদের মাথায় চিন্তার ভাঁজ পড়তে পারে বলে আশঙ্কা। এই অবস্থায় তারা বিজেপি বিরোধিতা করবে, সেটাই স্বাভাবিক।

কার দখলে বোড়োল্যান্ড?

কার দখলে বোড়োল্যান্ড?

এরই মাঝে আসছে অসমের বোড়োল্যান্ড অঞ্চলের ১২টি আসন। গত নির্বাচনে এই অঞ্চলের ১২টি আসনেই জিতেছিল বিপিএফ, তবে বর্তমানে তারা কংগ্রেসের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে। এদিকে গতবছর ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত বোড়োল্যান্ড টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনস্ট্রেশনের নির্বাচনে হারের মুখ দেখে বিপিএফ। গত ১৫ বছরে এই প্রথমবার কাউন্সিল হাতছাড়া হয় বিপিএফ-এর। এবং ৪০টি আসনের মধ্যে মাত্র ৯টি আসনে জিতেও ইউপিপিএল-এর সঙ্গে জোট বেঁধে কাউন্সিল দখল করে বিজেপি।

শেষ দফায় ৪০ আসনে ভোটগ্রহণ

শেষ দফায় ৪০ আসনে ভোটগ্রহণ

এতসব সমীকরণের মাঝেই অসমে শেষ দফায় ইভিএম বন্দি হচ্ছে ১২টি জেলার ৪০টি আসনের রায়৷ এর মধ্যে রয়েছে বিজেপির বর্ষীয়ান নেতা হেমন্ত বিশ্ব শর্মার জালুকবারি বিধানসভা কেন্দ্র৷ ভাগ্যপরীক্ষা হতে চলেছে ৩২৫ জন প্রার্থীর৷ তাঁদের মধ্যে রয়েছে ১২ জন মহিলা প্রার্থী৷ সবথেকে বেশি প্রার্থী রয়েছে গুয়াহাটিতে৷ সেখানে নির্বাচনের লড়াইয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৫ জন প্রার্থী৷

কংগ্রেসের ঘাঁটিতে ভোট

কংগ্রেসের ঘাঁটিতে ভোট

আজ যে ৪০টি আসনে ভোট রয়েছে, সেগুলির মধ্যে একটি বড় অংশ কংগ্রেসের শক্ত ঘাঁটি৷ রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অনেকেই মনে করছেন, অসমের শেষ দফার ভোটে মানুষের রায় কোনদিকে যাচ্ছে, তার উপর অনেকটাই নির্ভর করছে ফের একবার অসমের বিজেপি সরকার আসবে, নাকি বদল হবে সমীকরণে৷

[ad_2]

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *