বঙ্গে বিজেপির নির্বাচনী ভরাডুবির জন্য কারা দায়ী, সোজাসাপ্টা যাঁদের নিশানা তথাগতের

[ad_1]

বিজেপি নেতৃত্বকে একহাত নিচ্ছেন তথাগত

ভোটের ফলাফল প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই বিজেপি নেতৃত্বকে একহাত নিচ্ছেন প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি তথাগত রায়। তিনি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও বাংলার দায়িত্বপ্রাপ্ত তিন কেন্দ্রীয় নেতার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে সরব হন। অভিনেত্রীদের প্রার্থী করার জন্যও তিনি দায় চাপান নেতৃত্বের উপর। এরপর তাঁকে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব তলবও করেন।

শেষ কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে তোপ তথাগতের

শেষ কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে তোপ তথাগতের

তথাগত রায় এরপর চিঠি লিখে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি এখনই যেতে পারছেন না দিল্লিতে। কারণ তিনি করোনা আক্রান্ত। এখন অবশ্য খানিক ভালো আচেন তিনি। তবে দিল্লি পাড়ি দেওয়ার মতো অবস্থায় নেই। রিপোর্ট নেগেটিভ এলে তিনি দিল্লি যাবেন। তবে চিঠিতে বিশেষ কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে তোপ দাগতে ভোলেননি।

বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতা-নেত্রীদের সমালোচনা

বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতা-নেত্রীদের সমালোচনা

অর্থাৎ তথাগত রায় কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের ডাকে দিল্লিতে না গেলেও চিঠি লিখে নিজের অবস্থান জানিয়ে দিয়েছেন। বুঝিয়ে দিয়েছেন, তিনি তাঁর অবস্থান অনড় থাকছেন। তথাগত রায় নাম উল্লেখ না করেই বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতা-নেত্রীদের সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেন, চোর, লম্পট, বদমায়েশ, দুশ্চরিত্রদের দলে জায়গা দেওয়াতেই এই হার।

তথাগত রায় তোপ দাগেন যাঁদের নিশানায়

তথাগত রায় তোপ দাগেন যাঁদের নিশানায়

এর আগে তিনি বিজেপির প্রার্থী হওয়া অভিনেত্রীদের নগরীর নটী বলে কটাক্ষ করেন। এরপর কৈলাশ বিজয়বর্গীয়দের মাধ্যমে শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে ক্ষোভ জানান ওই প্রার্থীরা। এরপর তথাগত রায় তোপ দাগেন দিলীপ ঘোষ, কৈলাশ বিজয়বর্গীয়, শিবপ্রকাশ ও অরবিন্দ মেননকে উদ্দেশ্য করে।

মোদী- শাহদের নাম পাঁকে টেনে এনেছেন যাঁরা

মোদী- শাহদের নাম পাঁকে টেনে এনেছেন যাঁরা

তথাগত রায় ওই চারজনকে কেডিএসএ বলে উল্লেখ করে টুইটে দাবি করেন, এঁরাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহদের নাম পাঁকে টেনে এনেছেন। এঁদের জন্যই বিশ্বের বৃহত্তর দলের ভাবমূর্তি আজ নষ্ট হতে বসেছে। এরপরই কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব তাঁকে তলব করে বলে উল্লেখ করেন তথাগত রায় নিজেই।

যোগদান মেলা কাদের নিয়ে হয়েছে? তোপ

যোগদান মেলা কাদের নিয়ে হয়েছে? তোপ

এরপর তথাগত রায় বলেন, কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব ডেকে পাঠিয়েছে আমাকে। নিশ্চয় যাব। করোনা নেগেটিভ হলেই যাব। যা বলার ইতিমধ্যে বলে দিয়েছি। এরপরও আমি জানাব কীভাবে ওই নেতারা দলের সর্বনাশ করছেন। তথাগত বলেন, যোগদান মেলা কাদের নিয়ে হয়েছে? চোর, লম্পট, বদমায়েশ, দুশ্চরিত্রদের নিয়ে যোগদান মেলা হচ্ছে।

তথাগতের কোনও ক্ষোভ নেই সঙ্ঘের বিরুদ্ধে

তথাগতের কোনও ক্ষোভ নেই সঙ্ঘের বিরুদ্ধে

তথাগত বলেন, তাঁর কোনও ক্ষোভ নেই সঙ্ঘের বিরুদ্ধে। একমাত্র সঙ্ঘই ওই বেনোজল ঢোকানোর প্রতিবাদ করেছিল। তাদের কথা শোনা হয়নি। ফলে সঙ্ঘের কিছু করার ছিল না। তাঁরা হাত গুটিয়ে বসে থাকতে বাধ্য হয়েছিলেন। এই মর্মে রাজ্য নেতৃত্ব কোনও মুখ খোলেনি। বলছে, যা বলার কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বলবে। বিজেপির একাংশ মনে করছে। এটাই সিংহভাগ বিজেপি কর্মীর মনের কথা।

[ad_2]

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *