বাংলার ভোটের ট্রেন্ডে তাঁর ভবিষ্যদ্বাণী মিলে যেতেই পিকে ফাটালেন বোমা, প্রকাশ্যে বড় ঘোষণা

[ad_1]

মমতার ভোট সারথী কী বলছেন?

‘ আমি যে কাজ করছি আর তা করতে চাই না। আমি অনেক করেছি। এবার সময় এসেছে যাতে আমি একটু ব্রেক নি। জীবনে আরও কিছু করতে চাই। আমি এই জায়গা ছাড়তে চাই। ‘ এক বেসরকারি টিভি চ্যানেল সাক্ষাৎকারে একথা জানিয়ে কার্যত মমতার ভোট সারথী প্রশান্ত কিশোর ২ রা মে ভোটের ফল ঘোষণার দিন বোমা ফাটিয়ে দিলেন। প্রসঙ্গত, ২০২২ পাঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনে অমরিন্দর সিংয়ের পরামর্শদাতা হিসাবে ইতিমধ্যেই কাজ শুরু করে দিয়েছেন প্রশান্ত কিশোর।

 কাঁটে কা টক্কর ও বাংলা

কাঁটে কা টক্কর ও বাংলা

প্রসঙ্গত, বাংলার বুকে যে ভোট যুদ্ধ হয়েছে, তা কার্যত কাঁটে কা টক্কর। সেই জায়গা থেকে প্রশান্ত কিশোর জানান কতটা কঠিন ছিল এই লড়াই, ‘নির্বাচন কমিশন একেবারে একপাক্ষিক ছিল। আমাদের প্রচারে সমস্যা তৈরি করেছিল। আমরা আত্মবিশ্বাসী ছিলাম যে আমরা জিতব।’ তিনি জানান তৃণমূল যে বিপুল ভোটে জিতবে তা আগে থেকেই আঁচ ছিল তাঁর। পিকে শুধু জানান যে ‘ বিজেপি তাবড় প্রচার চালিয়ে বোঝাতে চেয়েছিল যে বাংলা তারাই জিতছে।’

এবার কি রাজনীতিতে পিকে?3

এবার কি রাজনীতিতে পিকে?3

প্রশান্ত কিশোর নীতীশ কুমারের হাত ধরে বহু আগেই রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। তবে বিহারের জেডিইউয়ের সঙ্গ ছেড়ে সেভাবে কোনও দলে প্রশান্ত কিশোরকে দেখা যায়নি। বাংলায় মমতাকে ভোট-রাস্তায় জেতার পথ দেখানোর পর প্রশান্ত বলছেন, ‘আমি ব্যর্থ রাজনীতিবিদ। আমাকে পিছনে ফিরতে হবে, আর দেখতে হবে আমি কী করব। ‘

'সেভ দিস টুইট '

‘সেভ দিস টুইট ‘

প্রসঙ্গত, বহু আগেই বিজেপি ১০০র বেশি আসন পাবে না বলে প্রশান্ত কিশোর একটি টুইট করেছিলেন। বঙ্গ বিজেপির তরফে দিলীপ ঘোষ সেই টুইটকে কার্যত নস্যাৎ করেন। এরপর আজ ফের একবার সেই টুইটকে ‘পিন” করেন পিকে। এদিন বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সাক্ষৎকারে প্রশান্ত সাফ জানান, ‘ প্রধানমন্ত্রী মোদীর জনপ্রিয়তা মানেই বিজেপি ভোট জিতবে তা নয়।’

[ad_2]

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *