বাংলার ভোটে বিজেপিকে তাবড় ইস্যুতে গোল দিয়ে ‘খেলা’ জিতে নিয়েছে তৃণমূল! নির্বাচন পরবর্তী সমীক্ষায় বড় বার্তা

[ad_1]

সমীক্ষায় আগে কে?

প্রসঙ্গত, বাংলার ভোটের পর এক সমীক্ষা চালিয়েছে সিএসডিএস লোকনীতি। সেখানে কয়েকটি অপশান বক্তাদের সামনে রেখেছন সমীক্ষকরা। তারমধ্যে যেমন রয়েছে উন্নয়ন, তেমনই রয়েছে, বেকারত্ব, সরকারের কাজ, পরিববর্তন, জল,বিদ্যুৎ, রাজ্যের বিভিন্ন স্কিম, রাস্তা, অর্থনীতির মতো বিষয়। আর এই সমস্ত ইস্যুর মধ্যে থেকে ভোটারদের কোন বিষয়টি মনে ধরেছে , তা জানার চেষ্টা করেছে এই সমীক্ষা।

কোন বলে স্টেপ আউট করে দিয়েছেন দিদি!

কোন বলে স্টেপ আউট করে দিয়েছেন দিদি!

মূলত সিএসডিএস লোকনীতির সমীক্ষা বলছে, মানুষের কাছে ‘উন্নয়ন’ ই সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে ভোট দিতে যাওয়ার আগে। ৩৩ শতাংশ মানুষ মনে করেন উন্নয়ন দেখেই তাঁরা ভোটদান করেছেন। ফলে এই উন্নয়ন ইস্যুটি তাঁদের কাছে বড়। প্রসঙ্গত বাংলায় রাজ্য সরকার ও কেন্দ্রীয় সরকার দুই তরফেই উন্নয়নের বার্তা দিয়েছে। রাজ্য শাসক তৃণমূল ও কেন্দ্রের এনডিএ জোটের বিজেপি বারবার নিজেদের উন্নয়নের খতিয়ান পেশ করেছে বাংলা নিয়ে। সেই জায়গা থেকে এই ইস্যুই বাংলার ভোটের বড় ফ্যাক্টর। বলছে সমীক্ষা। আর সেই দিক থেকে তৃণমূল সরকারের উন্নয়ন যে বিজেপিকে মাত দিয়েছে তা প্রকাশিত ভোটের ফলাফলে। ফলে এই খাতেই তৃণমূল ছাপিয়ে গিয়েছে বিজেপিকে।

বিজেপির তরফে 'দুর্নীতি' ইস্যু ও মানুষের রায়

বিজেপির তরফে ‘দুর্নীতি’ ইস্যু ও মানুষের রায়

বাংলার ভোটে তৃণমূল সরকারের দুর্নীতিকে বড় করে তুলে ধরা হয়েছে। তৃণমূলের নেতা, সাংসদ, মন্ত্রীদের বিরুদ্ধে বারবার কয়লা কাণ্ড থেকে গরু পাচার কাণ্ড নিয়ে সরব হয়েছে বিজেপি। তবে দুর্নীতি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল হয়ে মাত্র ২ শতাংশ মানুষ নিজের ভোট বিবেচনা করেছেন বলে দাবি সমীক্ষায়।

loadingশপথ নিলেন নবনির্বাচিত বিধায়করা, মানুষের জন্যে কাজই হবে প্রধান লক্ষ্য বলে দাবি হিরন-অশোকের

দুর্নীতি ও তৃণমূলের ভোটব্যাঙ্ক

দুর্নীতি ও তৃণমূলের ভোটব্যাঙ্ক

প্রসঙ্গত, সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে তৃণমূল দুর্নীতিগ্রস্ত বলে অনেকেই মেনে নিচ্ছেন। তবে তা সত্ত্বেও তাঁরা ভোট দিয়েছেন তৃণমূলের পক্ষে। এমন মানুষের শতাংশ ৫১ । ঠিক এই জায়গা থেকেই খেলা তৃণমূলের পক্ষে গিয়েছে বলে দাবি অনেকের। আর বিজেপি এই ক্যানভাসেই ধরাশায়ী হয়েছে বলেও বহু রাজনৈতিক বিশ্লেষকের বার্তা।

[ad_2]

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *