ভোট পরবর্তীতে দফায় দফায় উত্তেজনা নন্দীগ্রাম, কোভিড পরিস্থিতিতে বিপর্যস্ত সেখানকার স্বাস্থ্য পরিষেবা

[ad_1]

Midnapore

oi-Kousik Sinha

ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত বাংলাজুড়ে। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় আক্রান্ত হতে হচ্ছে বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের। পালটা তৃণমূলও আক্রান্ত হচ্ছে। কার্যত রাজনৈতিক সন্ত্রাস বাংলা জুড়ে।

তবে ভোট পরবর্তী সন্ত্রাসে সবথেকে খারাপ অবস্থা নন্দীগ্রামে। শুভেন্দু অধিকারী জিতলেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে জয়ের মার্জিন খুবই কম।

আর এরপর থেকেই রাজনৈতিক সন্ত্রাস নন্দীগ্রাম জুড়ে। গণনায় কারচুপি হয়েছে বলে ইতিমধ্যে অভিযোগ তুলেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা।

এই অবস্থায় ফের গণনার দাবিতে একদিকে চলছে তৃণমূলের বিক্ষোভ, আন্দোলন। অন্যদিকে, বিজেপি কর্মীদের উপরেও চলছে ব্যাপক অত্যাচার। এমনটাই অভিযোগ।

শুধু তাই নয়, নন্দীগ্রামের বিভিন্ন জায়গাতে রাস্তা কেটে চলছে অবরোধ। এর ফলে যাতায়াত করা অসম্ভব হয়ে পড়ছে। যেখানে করোনা পরিস্থিতি মারাত্মক হয়ে উঠছে সেখানেরাজনৈতিক সন্ত্রাসের কারণে স্বাস্থ্য সঙ্কট তৈরি হয়েছে নন্দীগ্রামে। এমনটাই দাবি।

জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, রাজনৈতিক সন্ত্রাস এতটাই ভয়ঙ্কর আকার নিয়েছে নন্দীগ্রামে যে তাতে স্বাস্থ্য পরিষেবা সেভাবে দেওয়াই যাচ্ছে না। সাধারণ গাড়ি পাওয়া যাচ্ছে না।

এমনকি স্বাস্থ্য দফতরের গাড়িকেও যেতে দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ স্বাস্থ্য আধিকারিকের। এতটাই উত্তপ্ত পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে যে স্বাস্থ্য কর্মীরা এক জায়গা থেকে অন্য জায়গাতে যেতে ভয় পাচ্ছে।

অবিলম্বে এই বিষয়ে পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ চাওয়া হয়েছে। এই বিষয়ে এখনই প্রশাসনের তরফে কোনও সাহায্য না পাওয়া গেলে কোভিড অবস্থায় নন্দীগ্রামে কাজ করা অসম্ভব হবে বলে দাবি জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিকের।

উল্লেখ্য, ভোট গণনার পর থেকেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে নন্দীগ্রাম। শুভেন্দুর জয় মেনে নিতে চাইছেন না সেখানকার তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা।

প্রতিবাদে ভোটের ফলাফল প্রকাশের দিনেই হলদিয়ায় শুভেন্দুর গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখানো হয়।

এমনকি শুভেন্দুর গাড়ি টার্গেট করে ইট বৃষ্টী করা হয় বলেও অভিযোগ। নন্দীগ্রামে ভোটের ফলাফল থেকেই একাধিক জায়গায় অবরোধ করে বিক্ষোভ হচ্ছে। তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে গণনায় কারচুপি হয়েছে।

নন্দীগ্রামে পুনর্গণনার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা । হলদিয়াতেও অবরোধ বিক্ষোভ মরে যাচ্ছেন তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা।

অন্যদিকে বাংলা জয় হলেও নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর কাছে পরাজিত হাওয়া মেনে নিতে পারছেন না তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রীও। তিনি অভিযোগ করেন নন্দীগ্রামে ভোট গণনায় কারচুপি হয়েছে। এই নিয়ে তিনি আদালতে যাবেন বলে জানিয়েছেন। তারপরেই তৃণমূলের প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানাতে যায়। যদিও কমিশনের তরফে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যা হয়েছে নিয়ম মেনেই হয়েছে।

[ad_2]

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *