ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস নিয়ে মুখ্যসচিবের সঙ্গে বৈঠকে রাজ্যপাল, সরজমিনে পরিস্থিতি দেখতে নন্দীগ্রামে কেন্দ্রীয় দল

[ad_1]

মুখ্যসচিবকে তলব করলেন রাজ্যপাল

মুখ্যসচিবকে তলব করলেন রাজ্যপাল ধনখড়। শনিবার সকালেই নিজেই একথা ট্যুইট করে জানিয়েছেন রাজ্যপাল। যা নিয়ে নতুন করে রাজ্য এবং রাজভবন সংঘাতের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। ট্যুইট করে রাজ্যপাল লিখেছেন, নির্বাচন পরবর্তী হিংসার ঘটনায় আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে স্টেটাস রিপোর্ট জমা দিতে ব্যর্থ অতিরিক্ত স্বরাষ্ট্রসচিব। কলকাতার পুলিশ কমিশনার ও রাজ্য পুলিশের ডিজি-র ৩ মে জমা দেওয়া রিপোর্টও রাজ্যপাল পাননি বলে জানিয়েছেন। সেই কারণেই শনিবার মুখ্যসচিবকে রাজভবনে ডেকে পাঠিয়েছেন বলে ট্যুইট করে জানালেন জগদীপ ধনকড়। ইতিমধ্যে রাজভবনে পৌঁছে গিয়েছেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যপালের সঙ্গে চলছে বৈঠক।

নন্দীগ্রামে কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক

নন্দীগ্রামে কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক

ভোট মিটতে অশান্তির ঘটনায় ফের শিরোনামে উঠে আসে নন্দীগ্রাম। এবার সেই অঞ্চলে ভোট পরবর্তী হিংসার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে পৌঁছে গেলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের প্রতিনিধি দল। শনিবারই বিকেলেই নন্দীগ্রামে পৌঁছেছেন তাঁরা। নন্দীগ্রাম ১ নম্বর ব্লকের হরিপুর হেলিপ্যাড ময়দানে হেলিকপ্টার থেকে নামেন তাঁরা। সেখান থেকে নন্দীগ্রামের একাধিক এলাকায় যাবেন তাঁরা। মিলন বাজার, মাধবপুর- সহ নদীর তীর বরাবর গ্রামগুলি ঘুরে দেখবেন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষকরা। শুভেন্দু অধিকারীর জয়ের পরেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে নন্দীগ্রাম। বিজেপি নেতা-কর্মীদের ঘর বাড়ি ভাঙচুর, মারধরের অভিযোগ নন্দীগ্রামের এক ও দুই নম্বর ওয়ার্ডের একাধিক অঞ্চলে। সেই সব জায়গাতেই গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলতে গেলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের প্রতিনিধিরা। জানা গিয়েছে, এ দিন তাঁরা নন্দীগ্রামের কেঁদেমারি, বলরামপুর, জলপাই ইত্যাদি গ্রামেও এলাকার মানুষের সঙ্গে কথা বলবেন। এমনটাই জানা গিয়েছে।

বীরভূমেও অশান্তি ছবি দেখেন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষকরা

বীরভূমেও অশান্তি ছবি দেখেন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষকরা

ভোট-পরবর্তী হিংসা অব্যাহত। আর এই হিংসার অভিযোগ কতটা সত্য তা খতিয়ে দেখতে কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক দল আজ শনিবার বীরভূমে পৌঁছন। বায়ুসেনার হেলিকপ্টারে পারুলডাঙ্গা মাঠে নেমে তাঁরা সোজা যান নানুরে। ভোটের আগে এবং পরে নানুর বারবার উত্তপ্ত হয়েছে রাজনৈতিক সংঘর্ষে। নানুরে ভোটের দিন বিজেপির প্রার্থীর গাড়িও ভাঙচুর করা হয়েছে। এই নানুরেই বিজেপির এক মহিলা কর্মীকে হেনস্থা করার অভিযোগ ওঠে। বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার একাধিক অভিযোগ একে অপরের বিরুদ্ধে। সেই সমস্ত পর্যবেক্ষণ করেন কেন্দ্রীয় দল। এবং বীরভূমের ভোট-পরবর্তী হিংসা যে সমস্ত জায়গায় ব্যাপক হারে দেখা দিয়েছে সেই সব জায়গাতেও কেন্রিয় পর্যবেক্ষকরা যান বলে জানা গিয়েছে। তবে একদিকে যখন নানুরে ভোট পরবর্তী সন্ত্রাসের ছবি নিজেদের চোখে দেখছেন তখন সন্ত্রাস চলছে দুবরাজপুরে।। যাঁদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, তাঁদের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হল, পুলিশের কাছে সে সব জানতে চাইবেন এই প্রতিনিধিরা।

ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস নিয়ে উদ্বিগ্ন কলকাতা হাইকোর্টও

ভোট পরবর্তী সন্ত্রাস নিয়ে উদ্বিগ্ন কলকাতা হাইকোর্টও

নির্বাচনের ফল ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি। কোথাও মারধর, কোথাও আবার খুনের অভিযোগ। বাড়ি ভাঙচুর। কোথাও আক্রান্ত তৃণমূল। রিসের্টে আগুন। কর্মীদের ওপর হামলা। মাকে মারধর। বাদ যাচ্ছে না কিছুই। কোথাও আক্রান্ত বিজেপি। কোথাও প্রাণ হারাচ্ছেন তৃণমূল কর্মী। ভোটের ফল প্রকাশের পর থেকে রাজ্যের বিভিন্ন অংশে বিক্ষিপ্ত অশান্তি শুরু হয়েছে। যা নিয়ে উদ্বিগ্ন কলকাতা হাইকোর্টও। ইতিমধ্যে হিংসা মামলার শুনানির জন্যে স্পেশাল বেঞ্চ তৈরি হয়েছে। শুনানিতে স্বরাষ্ট্রসচিবের কাছে হলফনামা আকারে রিপোর্ট তলব করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। রাজ্যজুড়ে কত সন্ত্রাস, কত অশান্তি, কী কী অভিযোগ জমা পড়েছে এবং পুলিশ কী কী ব্যবস্থা নিয়েছে তার পরিপ্রেক্ষিতে এই রিপোর্ট যাওয়া হয়েছে।

[ad_2]

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *