ভোট ভরাডুবির পর আব্বাসদের সঙ্গে ভবিষ্যতে জোট ধরে রাখা নিয়ে মুখ খুলেই বোমা ফাটালেন অধীর

[ad_1]

অধীরের স্পষ্ট বার্তা

অধীর চৌধুরী এদিন সাফ বার্তায় জানান, ‘ আমি আর কোনও দিনওই আইএসএফের সঙ্গে জোটে থাকব না।’ সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এদিন অধীর চৌধুরী এই বার্তা দেন। প্রসঙ্গত, ভোটের আগে আসন বণ্টন নিয়ে আইএসএফ ও কংগ্রেসের মধ্যে প্রবল সংঘাত দেখা যায়। তারপর এই জোট অঙ্কে দুই পক্ষ রাজি হলেও তার ফলাফল বাংলার বুকে স্বস্তি দেয়বি অধীর শিবিরকে।

 বামেদের প্রসঙ্গে বার্তা

বামেদের প্রসঙ্গে বার্তা

এদিন অধীর চৌধুরী সাফ বার্তার বলেন, এর আগে তিনি বামেদেরও বলেছিলেন যে আইএসএফের হাত না ধরতে। তবে ততদিনে বামেরা জোটের বিষয়ে আব্বাসদের সঙ্গে অঙ্গীকারবদ্ধ হওয়ায়, সেই রাস্তা থেকে সরে আসতে পারেনি। এমনই বক্তব্য জানান অধীর চৌধুরী। এর সঙ্গেই বঙ্গ কংগ্রেসের নেতার বার্তা ‘এবার ফলাফল দেখুন!’

 আব্বাসদের ভোটঅঙ্ক

আব্বাসদের ভোটঅঙ্ক

বাংলার বুকে ৩৪ বছর শাসন করেছে বামেরা। তার আগে কংগ্রেসের সরকারের দাপট দেখেছে পশ্চিমবঙ্গের বাঙালি। এই দুই তাবড় পার্টির সঙ্গে ২০২১ বিধানসভা ভোটের জোটে যুক্ত হয় আইএসএফ। এদিকে, ভোটের ফলাফলে দেখা যায়, বামেরা ও কংগ্রেস দুই শিবিরই বাংলায় খাতা খুলতে পারেনি। অন্যদিকে, ভাঙড় দখল করে আব্বাসের আইএসএফ কার্যত নবগঠিত পার্টি হয়ে কেল্লা ফতে করে দেয়।

জোট নিয়ে অধীর বার্তা

জোট নিয়ে অধীর বার্তা

অধীর চৌধুরীর দাবি, মোর্চার পতন বাংলায় অবিশ্যম্ভাবী ছিল। কারণ এই জোটকে মানতেই চাননি বাংলার মানুষ। প্রসঙ্গত, এবারের ভোটের আগেই মালদা থেকে মুর্শিদাবাদের আসন অঙ্ক নিয়ে সংযুক্ত মোর্চার মধ্যে কংগ্রেস বনাম আইএসএফ দ্বন্দ্ব পরিলক্ষিত হয়। অন্যদিকে ব্রিগেডের মাঠে মোর্চার সভায় অধীরের বক্তৃতার সময় আব্বাসের প্রবেশ ঘিরে কিছু দৃশ্য রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের নজর কাড়ে। সেই জায়গা থেকে ভোট পরবর্তী পর্যায়ে অধীর চৌধুরীর বক্তব্য বিশেষভাবে বার্তাবহ।

[ad_2]

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *