হাওয়া তিনি ঘোরাবেনই! বুঝতে হবে হিন্দুদের, ফাঁস হওয়া অডিওতে কর্মীদের আর কোন বার্তা শুভেন্দুর

[ad_1]

হামলা স্বাভাবিক

নন্দীগ্রামে তৃণমূলের বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ নিয়ে বিজেপি নেতা প্রলয় পাল কথা বলেন শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে। সেখানে তিনি চতুর্দিকে বিজেপি কর্মীদের ওপরে হামলার অভিযোগ করেন। উত্তরে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, হামলা তো স্বাভাবিক ঘটনা। প্রচারের সময় করেছে। সার্টিফিকেট নিয়ে যাওয়ার সময়ও করেছে। ইট ছুড়েছে কিন্তু বুলেট প্রুফ গাড়ি হাওয়ার তিনি রক্ষা পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী।

তিনি আক্রান্ত, পুলিশ দর্শক

তিনি আক্রান্ত, পুলিশ দর্শক

শুভেন্দু অধিকারী বলেছেন তিনি আক্রান্ত, পুলিশ সেখানে দর্শক। কারণ হিসেবে শুভেন্দু অধিকারী বলেছেন, রাজ্য সরকার ওদের। তাই তাদের চটানো যাবে না। এই পরিস্থিতিই তৈরি হয়েছে রাজ্যে। গণনা কেন্দ্র থেকে দলের তরফে যাঁরা ছিলেন, তাঁদেরকে পুলিশ দিয়ে বের করতে হয়েছে বলে জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনিই জায়গায় জায়গায় পুলিশ মুভমেন্টের ব্যবস্থা করেছেন বলে জানিয়েছেন।

হিন্দু এলাকায় শক্ত থাকতে হবে

হিন্দু এলাকায় শক্ত থাকতে হবে

শুভেন্দু অধিকারীকে বলতে শোনা গিয়েছে, হিন্দু এলাকায় শক্ত থাকতে হবে। শুভেন্দু অধিকারীর এই বক্তব্যে সায় দিতে শোনা গিয়েছে অপর বিজেপি নেতা প্রলয় পালকে। শুভেন্দু অধিকারী বলেছেন, যারা আহত হয়েছেন, তাঁদের চিকিৎসার দায়িত্ব তাঁর। যাঁদের ঘরবাড়ি লুট-ভাঙচুর করা হয়েছে, তাদের তালিকা মণ্ডল সভাপতি কিংবা অন্য কেউ তৈরি করে রাখুক। তাঁদের ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা করা হবে।

সক্রিয় কর্মীদের রাখতে হবে সেফ জায়গায়

সক্রিয় কর্মীদের রাখতে হবে সেফ জায়গায়

দলে যেসব গুরুত্বপূর্ণ নেতা-কর্মী রয়েছেন, তাঁদেরকে গোকুলনগর, সোনাচূড়া, বয়ালের দিকে হিন্দু প্রধান এলাকায় আশ্রয় দেওয়ার কথা বলেছেন। এর জন্য তিনি স্থানীয় নেতা পবিত্র, বট, জয়দেবকে কাজ করার জন্য বলেছেন। তাঁদের জন্য থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। তিনিই সব দায়িত্ব নিচ্ছেন। জামা-কাপড়, গামছা নিয়ে চলে আসুত তারা। একমাস থাকুক। বলেছেন নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ক। এইসব কাজ করার পাশাপাশি সবার ফোন ধরতেও প্রলয় পালকে নির্দেশ দিতে শোনা গিয়েছে শুভেন্দু অধিকারীকে।

হাওয়া ঘোরাবেন তিনিই, বিশ্বাস শুভেন্দুর

হাওয়া ঘোরাবেন তিনিই, বিশ্বাস শুভেন্দুর

শুভেন্দু অধিকারী বলেছেন, যেখানে মিশ্র এলাকা, বিজেপি শক্তি কম, সেখানে হঠাৎ করে চলে যাওয়ার দরকার নেই। তিনি আরও বলেছেন, জীবনে তিনি অনেক দেখেছেন। জায়গা ফের ঘুরিয়ে নেবেন। তাঁকে মেরে না ফেললে হাওয়া ঘোরাবেনই। বয়স এখনও ৫০ পেরোয়নি, বুড়োও হয়ে যাননি।

বুঝতে হবে হিন্দুদের

বুঝতে হবে হিন্দুদের

শুভেন্দু অধিকারীকে বলতে শোনা গিয়েছে, হিন্দুরাও একটু বুঝুক। হিন্দু বুথে ৭০০ ভোটের মধ্যে শুভেন্দু ৪০০ আর মমতা ৩০০। আর মুসলমান পাড়ায় ৭০০-র মধ্যে ৭০০ ই মমতা। মুসলমান বুথে কোনও কোনও জায়গায় বিজেপি পাঁচটা, দশটা, বারোটা, পনেরোটা করে ভোট পেয়েছে বলেও জানিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। হিন্দুপ্রধান কেন্দামারিতে বিজেপি ৫ হাজার লিড পেয়েছে।

[ad_2]

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *