Mumbai Man Sells Wife’s Jewellery to Distribute Free Oxygen Cylinders to Covid Patients

[ad_1]

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: May 1, 2021 8:31 pm|    Updated: May 1, 2021 8:31 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার (Covid-19) দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিধ্বস্ত গোটা ভারত। পর্যাপ্ত পরিমাণ অক্সিজেন, ওষুধ এবং বেডের অভাবে ভুগছেন দেশের সাধারণ মানুষ। দিল্লি (Delhi) থেকে মহারাষ্ট্র (Maharashtra)-সর্বত্র ছবিটা একই। এই পরিস্থিতিতে অনেকেই বিপদে একে অন্যের পাশে দাঁড়িয়েছেন। গত কয়েকদিনে এরকম একাধিক ঘটনা সামনে এসেছে।

সেই তালিকাতেই নাম লেখালেন পাস্কাল সালধানা নামে মুম্বইয়ের (Mumbai) এক মণ্ডপ ডেকোরেটর। করোনা আক্রান্তদের মধ্যে যাঁদের প্রয়োজন পড়ছে, তাঁদেরই বিনামূল্য অক্সিজেন সিলিন্ডার জোগাড় করে দিচ্ছেন তিনি। আর তার জন্য অর্থ জোগাড় করেছেন স্ত্রীর গয়না বিক্রি করে। গত ১৮ এপ্রিল থেকে এই কাজ করে আসছেন তিনি। আর সেটা সামনে আসতেই গোটা দেশ পাস্কাল সালধানার এই কাজকে কুর্নিশও জানিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: দিল্লিতে আরও এক সপ্তাহ লকডাউন, অক্সিজেনের অভাবে হাসপাতালগুলিতে মৃত্যুমিছিল অব্যাহত]

জানা গিয়েছে, পাস্কাল সালধানার স্ত্রী দীর্ঘদিন ধরেই কিডনির অসুখে ভুগছিলেন। তাঁর দুটি কিডনিই খারাপ। পাঁচ বছর ধরে ডায়ালিসিস চলছে। কয়েকদিন আগেই অক্সিজেন সাপোর্টেও থাকতে হয়েছিল। আর সেজন্য তাঁদের কাছে সবসময় একটি অতিরিক্ত সিলিন্ডার ছিল। গত ১৮ এপ্রিল স্থানীয় একটি স্কুলের মহিলা প্রিন্সিপ্যাল অক্সিজেনের জন্য পাস্কালের সাহায্য চান। পাস্কালের স্ত্রীও ওই মহিলাকে সাহায্য করতে স্বামীকে অনুরোধ করেন। এরপর স্ত্রীর অনুরোধ মেনে অতিরিক্ত সিলিন্ডারটি তাঁকে দিয়েও দেন পাস্কাল। এরপরই ওই স্ত্রী তাঁকে আরও অনেককে সাহায্য করার কথা বলেন। সেই মতো স্ত্রীর সমস্ত গয়না বিক্রি করে ৮০ হাজার টাকা জোগাড়ও করেন পাস্কাল। তাই দিয়ে শুরু করেন অক্সিজেনের ব্যবসা। করোনা রোগীদের মধ্যে যাঁদের প্রয়োজন, তাঁদের বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ শুরু করেন। সংবাদসংস্থা এএনআইয়ের সৌজন্যে পাস্কালের মহৎ এই কাজের খবর প্রকাশ্যে আসে। অনেকেই তাঁর এই কাজকে কুর্নিশ জানিয়েছেন।

 

[আরও পড়ুন: করোনা সংকটে ভারতের পাশে থাকার বার্তা, তেরঙ্গায় সাজল নায়াগ্রা জলপ্রপাত]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ

নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে



[ad_2]

Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *